যেভাবে গল্প জমা দিবেন

0

ভূতের ব্লগে আপনার নিজের কোনো ভৌতিক অভিজ্ঞতা অথবা গল্প জমা দিয়ে ভূতের ব্লগের পরিবারে যোগ দিন। গল্প জমা দেয়ার জন্য ডান পাশের লাল বাটনে “আপনার অভিজ্ঞতা/গল্প লিখুন” লিখা জায়গায় ক্লিক করুন।

 

তারপর আপনি লগইন পেজটি দেখতে পাবেন। এখন থেকে ফেইসবুক এর মাধ্যমে সহজেই লগইন করে ফেলতে পারবেন। আর লগইন শেষে গল্প লিখার এডিটর দেখতে পারবেন। লিখা শুরু করে দিন আজই! ধন্যবাদ।

 

ব্যাখ্যার বাহিরে

1

আজ আমি আমার জীবনের ঘটে যাওয়া একটি চরমতম অস্বাভাবিক ঘটনা শেয়ার করবো।জানি,আপনাদের মধ্যে হয়তো কেউ ঘটনাটা বিস্বাস করবেন না,কিন্তু যারা আমার কাছের মানুষ,তারা মোটামুটি সবাই কাহিনিটা জানে।

২০০৮ সালের শেষ বা ২০০৯ সালের শুরুতে,একদিন বিকেল বেলা,মুখ চেনা একজন লোক কে দেখি,হালুয়াঘাট কামারপট্টীর সামনে দাড়ানো।মুখ চেনা কিন্তু কখনই কথা হয়না তাই কিছু বলিনি।এই দেখার কয়েকদিন পর তার সাথে আবার দেখা কৃষি ব্যাংক এর সামনে।এর পর প্রায় সপ্তাখানেক পর তার সাথে দেখা হালুয়াঘাট জিরো পয়েনট এ,রাম পুজন এর হোটেলের সামনে।আমি ঢুকবো,সে ঢোকার রাস্তায়।চোখে চোখ পরে যাওয়ায় সৌজন্যতা বশত তাকে জিজ্ঞাস করি,কেমন আছেন ?উনি উত্তর দেন,ভালই।আবার বলি,আপনাকে ইদানিং দেখি না,কই থাকেন ?উনি উত্তর দেন,আমি ত অনেক দূরে থাকি।সেদিন এতটুকুই আলাপ।
দিন পনের পর তার ছোট ভাই এর সাথে দেখা,তাকে কথা প্রসঙ্গে বললাম,আপনার বড় ভাই এর সাথে সেদিন দেখা হল।
সে বলল,কি বল আবল তাবল?আমার বর ভাই কে তুমি দেখবা কোথা থেকে,সে ত আড়াই বছর আগে মারা গেছে !
আমি বললাম,আমি শিওর, আমি আপনার বড় ভাইকেই দেখছি।
সে বল্ল,কি ভাবে সম্ভব?
আমি তাকে বললাম,চলেন আপনার বাসায়,আপনার ভাই এর ছবি দেখব।
তার সাথে তখন এ তার বাসায় যাই,গিয়ে তার ভাই এর ছবি দেখে আমার শিড়দাড় দিয়ে বিদ্দুত এর মত কিছু চমকে উঠে !
কারন,ছবির ব্যক্তি আমি যার সাথে কথা বলেছি,সেই !
এই ঘটনাটা আমার আশপাশের অনেকের সাথেই শেয়ার করেছি,কিন্তু কেউ এর গ্রহনযোগ্য কোনো ব্যাখ্যা দিতে পারে নি,বেশিরভাগ লোক ই বিশ্বাস করেনি।
এর পর থেকে অবধি আমি মনে মনে সেই লোক টাকে খুজি।
আর একটা বিষয় হল,তার সাথে আমার ৩ বার ই প্রায় same যায়গায় দেখা হয়েছে।

অবিশ্বাস্য তবু বিশ্বাস করতে হবে(পর্ব- ২)

1

ঝালকাঠি জেলার রুনশি গ্রামে ২০০৮ সালের শেষের দিকে এক অদ্ভুত পরিবারের আগমন ঘটে।। তারা এর আগে কোথায় থাকতো এই ব্যাপারে কারো কোনো নির্দিষ্ট ধারণা ছিল না।। এরা সারাদিন ঘরের দরজা আটকে বসে থাকতো এবং গভীর রাতে এদের বাসা থেকে এক ধরনের পাশবিক আওয়াজ আসতো।। অনেকটা প্রচণ্ড মৃত্যু যন্ত্রণায় কেউ ছটফট করছে,এমন আওয়াজ।। ঐ বাসার লোকদের মাঝে শুধু একজন মাঝে মাঝে কেনাকাটার জন্য ঘরের বাইরে বের হতো।।

পরিবারের সবাই ডিসেম্বর মাসের ২ তারিখে একত্রে মারা যায়।।

ঐদিন সকালে তাদের বাসার দরজা খোলা থাকলে এবং ভেতরে কুকুরের আওয়াজ পাওয়া গেলে গ্রামবাসী সবাই দেখতে উৎসুক হয়ে ঢুকে পড়ে।। দেখা যায়, এক পাশে স্তূপ করে পড়ে আছে ৫ জনের মৃত দেহ এবং সারা ঘরে অদ্ভুত সব আলপনা আঁকা।। এছাড়াও সেই ঘর থেকে উদ্ধার করা হয় অসংখ্য মানব কঙ্কাল এবং বিড়াল, কুকুর, শিয়াল, মানুষসহ আরো কিছু প্রাণীর মৃত দেহ।।

ঘটনাটি প্রেত সাধনা বলে অনেকেই আখ্যায়িত করেন।। স্থানীয় দৈনিকে এই ঘটনা নিয়ে সাংবাদিক “নাজমুল বাশার” লেখালেখি করেন কিছুদিন।। আশ্চর্যজনক ভাবে, বাশারকে একদিন সেই বাড়ির সংলগ্ন পুকুরের পানিতে মৃত অবস্থায় ভাসতে পাওয়া যায়।। (সুত্রঃ দৈনিক ইনকিলাব) ডাক্তাররা জানিয়েছিলেন, বাশার হৃদ যন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা যান।।

অবিশ্বাস্য তবু বিশ্বাস করতে হবে(পর্ব ১)

11

আমেরিকার মিসিসিপিতে অবস্থিত থ্রী লেগড লেডি(বাংলা অর্থঃ তিনপায়া মেয়ে) রোড ধরে দিনের বেলা স্থানীয় কবরস্থানকে পাশে রেখে যান, কিছু হবে না!! কিন্তু রাতেরবেলা ঐ রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় যদি আপনি গাড়ী থামিয়ে তিনবার আপনার গাড়ীর হেডলাইট জ্বালান-নেভান, তাহলে সম্ভবনা আছে যে আপনি বিপদে পড়বেন!! কি বিপদ তা জানি না, কেউ এসে ঝাঁপিয়ে পড়তে পারে, নাহলে আপনার গাড়ীর স্টার্ট বন্ধ হয়ে যেতে পারে!! একেকজন একেকরকম বিপদে পড়ে।। কারো হয়তো ইঞ্জিন বন্ধ হয়ে যায়, আর স্টার্ট নেয় না।। কেউ হয়তো দেখে একটা ছোট মেয়ে খেলার পুতুল হাতে নিয়ে রাস্তার পাশে বসে গাড়িটার দিকে তাকিয়ে আছে!!  সেখানে প্রচলিত ঘটনা অনেকটা এরকমঃ কোন এককালে সেই রাস্তার পাশে এক বিশাল জনপদ ছিল।। সেখানে এক বাচ্চা মেয়ে জন্মেছিল তিন পা নিয়ে!! একটু বড় হতেই আশেপাশের মানুষজন তাকে ডাইনী আখ্যা দিয়ে বেঁধে গাড়ীর পেছনে করে সারা রাস্তা চষে বেড়িয়েছে এবং এভাবেই রক্তক্ষরণে তার মৃত্যু হয়!! তারপর থেকেই সেই রাস্তায় এমন সব অদ্ভুত ব্যাপার ঘটতে থাকে।। এমনকি, সেই জনপদটি এই ঘটনার পরপরই খুব দ্রুত হারিয়ে যায় জায়গাটি থেকে।। ঐ মেয়েটির স্মরণেই পরে জায়গাটার নাম দেয়া হয় “থ্রী লেগড লেডি”!!  যাদের মনে সন্দেহ আছে ঘটনার সত্যতা নিয়ে, তারা গগলে “three legged lady road in USA” লিখে সার্চ করুন।। আরও বিস্তারিত জানতে পারবেন।।